১৬০০ দ্বীপপুঞ্জের হালং বে

ভিয়েতনামের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটকদের গন্তব্য স্থান হলো হালং বে । ভিয়েতনাম ভ্রমণে গেলে হালং বে’তে বেড়াতে যান না এমন লোক খুবই কম পাওয়া যাবে । লক্ষ কোটি বছরের পুরানো হালং বে জলছোঁয়া চুনাপাথরের সমন্বয়ে তৈরি দ্বীপপুঞ্জের সারিকে দূর থেকে দেখলে মনে হবে ড্রাগনের পিঠের মতো । বেশিরভাগ জনশূন্য, নির্বিঘ্ন দ্বীপ ও দ্বীপপুঞ্জের সারি প্রাকৃতিকভাবে গড়ে উঠেছে হাল্কা সবুজ এবং ফিরোজা জলছোঁয়া চুনাপাথরের সমন্বয়ে ।

Image may contain: outdoor and nature

হালং বে ডে ট্রিপ নিয়ে অনেক ট্যুর সার্ভিস আছে তবে আমি পাঠকদের উদ্দেশ্যে কমপক্ষে হালং বে’তে জাহাজে ২ দিন ১ রাত থাকার পরামর্শ দিচ্ছি কারণ প্রায় ২৪ ঘণ্টা জাহাজ ভ্রমণের সময় অসাধারণ কার্যকলাপের স্মৃতি সারাজীবন ভ্রমণকারীদের মনে গেঁথে থাকবে আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি । বিভিন্ন ক্রিয়াকলাপের মধ্যে পায়ে হেঁটে ১০০ মিটার উচ্চতা সম্পন্ন টি-টপ আইল্যান্ডের চূড়ায় আরোহণ, সমুদ্রে সাঁতার কাটা, হালং বে’তে জীবনের প্রথম কায়াকিং, জাহাজে সারারাত অবস্থান করা, জাঙ্ক বোট-এ (পুরনো চীনা নৌকার মতো) প্রচুর পরিমাণে সুস্বাদু খাবার খাওয়ার অভিজ্ঞতা, হালং বে’র বৃহত্তম গুহা অর্থাৎ সুং সট গুহা পর্যবেক্ষণ করা এমন অভিজ্ঞতা যেগুলি একজন ভ্রমণকারী সারাজীবন লালন করবে ।

Image may contain: one or more people, mountain, outdoor, nature and water

দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।

সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।

error: Content is protected !!
Tourplacebd.com