নির্ধারণ হলো টাংগুয়ার হাওরের নৌকা ভাড়া

সুনামগঞ্জের সবচেয়ে জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র টাংগুয়ার হাওরের নৌকা ভাড়া।

শনিবার (১০ আগস্ট) সকালে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ ইমতিয়াজ একটি নির্দিষ্ট ভাড়ার তালিকা প্রকাশ করলে এতে ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েন পর্যটকরা।রিপন দে আসিফ ইমতিয়াজের সঙ্গে কথা বলে বিকেলে একটি নিদিষ্ট ভাড়ার তালিকা প্রণয়ন করেন।

ভাড়ার তালিকা থেকে জানা যায়, নৌকার ধরনভেদে সর্বোচ্চ ২০ জন যাত্রী ৮ থেকে ১২ ঘণ্টার জন্য ৩ হাজার টাকা, ২ দিন ও ১ রাতের জন্য ৬ হাজার টাকা, ৩দিন ২ রাতের জন্য ৭ হাজার টাকা। সর্বোচ্চ ৩০ জন যাত্রীর জন্য নৌকা ৮ থেকে ১২ ঘণ্টার জন্য ৪ হাজার ৫০০ টাকা, ২ দিন ১ রাতের জন্য ৯ হাজার টাকা, ৩ দিন ২ রাতের জন্য ১০ হাজার টাকা। তাছাড়া বড় নৌকা সর্বোচ্চ ৪০ জন যাত্রীর ধারণক্ষমতা সম্পন্ন নৌকায় ৮ থেকে ১২ ঘণ্টা ৬ হাজার টাকা, ২ দিন ১ রাতের জন্য ১২ হাজার টাকা ও ৩ দিন ২ রাতের জন্য ভাড়া ১৩ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছে প্রশাসন।

ভাড়া বেধে দেয়ার পাশাপাশি প্রত্যেক নৌকায় লাইফ জ্যাকেট ফ্রি দেয়ার জন্য সকল নৌকার মালিকদের নির্দেশনা দিয়েছে প্রশাসন।

এ ব্যপারে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ ইমতিয়াজ জাগো নিউজকে বলেন, ‘সংবাদ প্রকাশের পর থেকেই আমি নৌকার মালিকদের সঙ্গে কথা বলি। তাদের সুবিধা ও পর্যটকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে একটি ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যদি নৌকাগুলো নির্ধারণ করে দেয়া ভাড়া না মানে তাহলে উপজেলা প্রশাসনকে পর্যটকরা জানাতে পারবেন। যদি অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায় তাহলে অভিযুক্তদের জরিমানা করা হবে।’

এদিকে সন্ধ্যায় নতুন নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে অনেকে এই ভাড়াকে সাধুবাদ জানান।

টাংগুয়ার হাওরে কিভাবে যাবেন, কি দেখবেন, ভ্রমণ খরচ এবং অন্যান্য সকল তথ্য জানতে পড়ুন

দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।

সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।

Tourplacebd.com