কক্সবাজারসহ ৪ জেলায় পর্যটন কেন্দ্রসহ বিয়ে ও পারিবারিক অনুষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে কক্সবাজার এবং তিন পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানে পর্যটনসহ সব ধরনের বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া বিয়ে ও পারিবারিক অনুষ্ঠানসহ যাবতীয় সামাজিক অনুষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বুধবার বিকাল ৫টায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের এক জরুরি সভায় এসব নির্দেশনা ঘোষণা করেছেন জেলা প্রশাসক মো. মিজানুর রহমান। এ সময় সিভিল সার্জনসহ পুলিশ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন স্তরের সামাজিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মো. মিজানুর রহমান বলেন, সারা দেশের সঙ্গে কক্সবাজারসহ তিন পার্বত্য জেলায় করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। প্রতিরোধে কঠোর ও দায়িত্বশীল না হলে পরিস্থিতি ভয়াবহ আকারে রূপ নিতে পারে। তাই সরকারের আদেশক্রমে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ চার জেলায় যাবতীয় পর্যটন কেন্দ্র এবং বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

একই সঙ্গে বিয়ে ও পারিবারিক অনুষ্ঠানসহ যাবতীয় সামাজিক অনুষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এসব কেন্দ্র ও অনুষ্ঠানে লোক সমাগম সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ থাকবে। রাঙ্গামাটিসহ এ চার জেলায় ইতোমধ্যে শুরু হওয়া যে কোনো মেলা ও সামাজিক অনুষ্ঠান বুধবার থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যাবতীয় সভা, সেমিনার, প্রশিক্ষণ বন্ধ রাখতে হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, যে কোনো যানবাহনে যাত্রী পরিবহন এবং হোটেল রেস্তোরাঁয় ৫০ ভাগ সমাগম নিশ্চিত রাখতে হবে। ওষুধের দোকান ব্যতীত অন্য সব দোকান রাত ৮টার পর বন্ধ করতে হবে। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সবাইকে দায়িত্বশীল হতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। আবশ্যিকভাবে মাস্ক পরতে হবে। কোথাও অযথা আড্ডা না জমানোর জন্য নির্দেশনা দেন জেলা প্রশাসক।

সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা বলেন, রাঙ্গামাটিতে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বগতির মধ্যে। এ মুহূর্তে কঠোর না হলে ভবিষ্যতে মহাবিপদ আসতে পারে।

খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, করোনা সংক্রমণ বাড়ায় আগামীকাল থেকে খাগড়াছড়ির আলুটিলা, রিছাং ঝরনা, জেলা পরিষদ পার্কসহ সব পর্যটন বন্ধ থাকবে। একইসঙ্গে খাগড়াছড়ি জেলায় সব ধরনের ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠান এবং এই উপলক্ষে জন সমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি পালনে জনগণকে সচেতন করতে প্রচারণার পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত চলছে।

বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরিজি বলেন, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। সংক্রমণ রোধে ১লা এপ্রিল থেকে আগামী ২ সপ্তাহের জন্য বান্দরবান জেলার সবগুলো পর্যটন স্পট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আবাসিক হোটেলগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে দু’সপ্তাহের পর পরবর্তী নির্দেশনা দেয়া হবে।

Tourplacebd.com